দামি পেট্রোল আর নয়, এখন থেকে অর্ধেক খরচে চলবে বাইক!

খুব শীঘ্রই দেশে এমন দুই মোটরবাইক নির্মাণ সংস্থা ভারতের বাজারে নিয়ে আসছে নতুন দিনের বাইক। না, শুধু পেট্রোলের উপরে নির্ভর করতে হবে না। আরও কম দামের জ্বালনিতেই চলবে বাইক। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় পরিবহণ ও জাহজ মন্ত্রী নীতীন গড়কড়ি।

পেট্রোলের দাম ক্রমশই মধ্যবিত্তের আয়ত্বের বাইরে চলে যাচ্ছে। দিন দিন জ্বালানি হয়ে উঠছে যন্ত্রণা। গত রবিবার গড়কড়ি সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, চলতি মাসেই দু’টি মোটরগাড়ি প্রস্তুতকারী সংস্থা ভারতের বাজারে আসছে। নিয়ে আসছে ‘ফ্লেক্স ইঞ্জিন মোটরসাইকেল’ যা শুধু পেট্রোলেই নয়, চলবে সস্তার জ্বালানি ইথানলের সাহায্যেও।

নীতীন গড়কড়ি আরও জানিয়েছেন, ‘‘ভারতের বাজারে যে দু’টি সংস্থার মোটরবাইক আসছে সেগুলি ১০০ শতাংশ পেট্রোল কিংবা ১০০ শতাংশ ইথানলে চলবে।’’

মন্ত্রীর কথায়, কেন্দ্র দেশে এই ধরনের মোটরবাইকের ব্যবহার বাড়িয়ে কৃষির উন্নতি ঘটাতে চাইছে। এখন দেশ তেল আমদানি করে ৭ লাখ কোটি টাকা খরচ করে। নীতীন গড়কড়ির বক্তব্য, এর মধ্যে যদি ২ কোটি টাকা বাঁচানো যায় তবে তা কৃষি অর্থনীতির উন্নতিতে কাজে লাগবে।

Loading...

গড়কড়ি এও জানিয়েছেন যে, কেন্দ্রীয় সরকার দেশে ইথানল উৎপাদনেরও উদ্যোগ নিচ্ছে। গম, ধান গাছের খড় এবং বাঁশ থেকে ইথানল তৈরি করা যায় খুবই কম খরচে। মন্ত্রীর কথায়, ‘‘এক টন খড় থেকে ২৮০ লিটার ইথানল জ্বালানি তৈরি করা সম্ভব যা নতুন শিল্পও গড়ে তুলবে। এই জ্বালানি শুধু সস্তাই নয়, একই সঙ্গে দূষণ ঘটায় না।’’

দেশে ৭০ হাজার কোটি টাকা খরচ করে তৈল শোধনাগার না বানিয়ে উত্তর পূর্ব ভারতে ব্যাপক হারে বাঁশের চাষ করা দরকার বলেও জানিয়েছেন গড়কড়ি। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে পেট্রোলের থেকে অর্ধেক খরচে ইথানল তৈরি করা যাবে। মন্ত্রীর দাবি, দেশে একটু একটু করে দামি জ্বালানি পেট্রোল, ডিজেলের বদলে ইলেক্ট্রিক, ইথানল, মেথানল, বায়ো-ডিজেল, বায়ো সিএনজি ইত্যাদির ব্যবহার বাড়াতে হবে।

ইথানলের ব্যবহার একই সঙ্গে পরিবেশের উন্নতি, জ্বালানির খরচ কমানো এবং কৃষির উন্নতি ঘটাবে বলে জানিয়ে গড়কড়ি বিভিন্ন দেশের কথাও উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমেরিকা, ব্রাজিল, কানাডায় মার্সিডিজ, বিএমডব্লু, ফোর্ড, টয়োটার মতো সংস্থার গাড়ি ফ্লেক্স ইঞ্জিনে চালাতে পারলে আমরা পারব না কেন! আগামী দিনে দেশে ব্যপক হারে ব্যাটারি চালিত বাস চলবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। সেই সব বাস তিন মিনিট চার্জ নিয়ে টানা ৩৬ কিলোমিটার চলতে পারবে। সুত্রঃ এবেলা, সময়ের কণ্ঠস্বর

About চীপ ইডিটর

View all posts by চীপ ইডিটর →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.