পৃথিবীর সবচেয়ে হাস্যকর ম্যাচ ফিক্সিং; নিরুপায় আইসিসি! (ভিডিও সহ)

ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে ফিক্সিংয়ের ঘটনা নতুন কিছু নয়। পাকিস্তানিরা এ দিক দিয়ে বিশ্বে শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ন রেখেছে। ভারতেও ফিক্সিংয়ের ঘটনা নিয়মিত ঘটে। ঘটে বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটেও। তবে দুবাইয়ের একটি ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগে যা ঘটল, তাকে বিশ্বের সবচেয়ে হাস্যকর ম্যাচ ফিক্সিং বললে ভুল হবে না!

আরও পড়ুন: ওমরাহ পালন সম্পন্ন করলেন মাশরাফি !!

আজামান অলস্টার লিগ নামে ওই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের আউটগুলো দেখলে ক্রিকেট সম্পর্কে অনভিজ্ঞ কোনো মানুষও বলে দেবে এতে কোনো গড়বড় আছে।

Loading...

দুবাই স্টারর্স বনাম শারজা ওয়ারিয়র্সের টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ফুটেজে হাস্যকর সব রান-আউট আর স্টাম্পিংয়ের ছবি দেখে স্পষ্টই বোঝা যায় গড়াপেটা হয়েছে ম্যাচটিতে। তবে নাকি দূর্নীতির পর্যাপ্ত প্রমাণ হাতে থাকা সত্ত্বেও আজমন অল-স্টার লিগের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে পারছে না আইসিসি!

আরও পড়ুন: বিবাহ বিচ্ছেদের পর কেমন সুখে আছেন এই তারকারা!

দুবাই স্টারর্স বনাম শারজা ওয়ারিয়র্সের ওই ম্যাচটির ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ার প্রকাশ্যে আসার পরেই নড়েচড়ে বসে আইসিসি। আইসিসির অ্যান্টি করাপশন ইউনিটের জেনারেল ম্যানেজার অ্যালেক্স মার্শাল তড়িঘড়ি টুর্নামেন্ট নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেন। প্রাথমিক অনুসন্ধানে দূর্নীতির পর্যাপ্ত তথ্য প্রমাণ হাতে এসেছে আইসিসির। তা সত্ত্বেও কোনোরকম শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া যাবে না। কারণ, ওই টুর্নামেন্টটি আইসিসি অনুমোদিত নয়।

তবে আয়োজকদের চিহ্নিত করে পরবর্তীকালে ব্যবস্থা নেওয়ার উপায় খুঁজছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। এই টুর্নামেন্টটি দুবাইয়ের স্থানীয় এমিরেটস ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনেরও অনুমোদিত নয়। এই ঘটনার পর সংশ্লিষ্ট ক্রিকেট বোর্ডগুলির নথিভূক্ত কোনো ক্রিকেটার এমন অনুমোদনহীন টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছেন কিনা তা অনুসন্ধানের নির্দেশ দিয়েছে আইসিসি। এমন কাউকে পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

About চীপ ইডিটর

View all posts by চীপ ইডিটর →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.